মাশরুমকে ব্যাঙের ছাতা বলে অনেকেই যতই অবহেলা করেন না কেন, মাশরুম কিন্তু আসলে অত্যন্ত বহুমুখী খাদ্যগুণ সম্পন্ন। শুধু তাই নয়, এর আছে অনেক ঔষধি গুনাগুণ।  পাশ্চাত্যের খাবারেও যেমন মাশরুমের ব্যবহার হয়, তেমনই দেশী খাবারেও মাশরুম ব্যবহার করা যায় খুব সহজে। শুধু সবজি হিসাবে খাওয়াই নয়, মাশরুম দিয়ে নানা ধরণের সুস্বাদু স্ন্যাক্সও তৈরি করা যায়।বাড়িতে বিশেষ আয়োজনে অথবা বিকেলের আড্ডায় রাখতে পারেন চিকেন স্টাফড মাশরুম।

আসুন, আজ আমরা জেনে নেই সহজ রেসিপিটি-

উপকরন ঃ

  • মাশরুম – ১০ টি বড় আকারের (ক্রেমিনি বা বাটন মাশরুম)
  • পেঁয়াজ – ২ টি (মিহি করে কুচানো)
  • লাল ক্যাপসিকাপ – ১ টি (মিহি করে কুচানো)
  • কাঁচা মরিচ – ২টি (মিহি করে কুচানো)
  • থাইম – ১ চা চামচ
  • পারমেসন চিজ – ১ টেবিল চামচ (গ্রেড করা)
  • অরিগানো – ১ চা চামচ
  • মাখন – ২ টেবিল চামচ
  • চিকেন কিমা – ২০০ গ্রাম
  • গরম মসলা- অল্প পরিমাণে
  • লবন- স্বাদমতো

প্রণালীঃ

  • চিকেন কিমা প্রথমে লবণ দিয়ে ভাল করে সিদ্ধ করে নিন।
  • এবার ৪০০ ডিগ্রি ফারেনহাইটে ওভেন প্রিহিট করে নিন।
  • মাশরুমগুলি ভাল করে ধুয়ে পরিস্কার করে নিন।
  • মাশরুমের কান্ডটি ভেঙে নিন যাতে মাশরুম বাটির আকার নেয়।
  • মাশরুমের এই কান্ডগুলি ভাল করে মিহি করে কুচিয়ে নিন।
  • একটি ফ্রাইং প্যানে মাখন দিন। আঁচ মাঝারি রাখুন।
  • মাখন গলে গেলে এতে মাশরুমের কান্ড দিয়ে দিন। ২ মিনিট ভাজুন।
  • এতে পেঁয়াজ দিয়ে দিন।
  • মিনিট খানেক ভাজুন যতক্ষণ না পেঁয়াজে হাল্কা সোনালি রং আসছে।
  • এতে মরিচ ও ক্যাপসিকাম দিয়ে দিন।
  • রান্না করুন যতক্ষণ না নরম হচ্ছে
  • এতে চিকেন কিমা দিয়ে দিন।
  • ভাল করে নাড়াচাড়া করে মিশিয়ে নিন।
  • এতে শুকনো মশলা, লবণ ও চিজ দিয়ে ২ মিনিট নাড়াচাড়া করুন।
  • আঁচ বন্ধ করে দিন।
  • এই পুরটি মাশরুমে ভরে দিন ভাল করে ঠেসে ঠেসে।
  • তেল দিয়ে গ্রিস করা বেকিং ট্রে তে রেখে ১৫-২০ মিনিট বেক করে নিন।
  • পারমেসন চিজ দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

Facebook Comments


Comments are closed.