সালাদ আমাদের সকলের কাছে প্রিয় একটি খাবার । আমরা কেউ সালাদ শখ করে খায় আবার কেউ  স্বাস্থ্যের কথা চিন্তা করে খাই। এই সালাদ যেকোনো সময় খাওয়া যায়। দুপুরের খাবারের সাথেও খেতে পারেন । আবার কেউ যদি চায় তাহলে  বিকেলের নাশতা হিসেবেও খাওয়া যাবে।অনেকেই  রাতের খাবার হিসেবে এক বাটি স্যুপ খাওয়ার পর ব্রকলি-মাশরুমের সালাদ নেয়া যেতে পারে।

রোগ প্রতিরোধক্ষমতা বাড়াতে আমরা করোনাভাইরাসের হাত থেকে সহজেই রক্ষা পেতে পারি। তাই খাদ্যতালিকায় আমাদের রাখতে হবে এমন সব খাবার, যেগুলো খেলে সত্যিকারভাবে আমাদের ভেতর থেকে শক্তিশালী করে তুলবে।

রোগ প্রতিরোধক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য ব্রকলি ও মাশরুমের সালাদ খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন ডক্টররা । ব্রকলি ও মাশরুমের সালাদ খাবারটিতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি, ডি, ক্যালসিয়াম এবং ফাইবার আছে।

সালাদ বানানোর প্রক্রিয়া

উপাদান

১. ব্রকলি: ১ কাপ

২. মাশরুম: ১  কাপ

৩. জলপাইয়ের তেল: ২-৩ চা-চামচ

৪. ওরেগানো পাউডার: পরিমাণ মত

প্রণালী

প্রথমে মাশরুমগুলো জলপাইয়ের  তেলের সাথে  সামান্য ভেজে নিতে হবে। ভাজা হয়েগেলে  সেগুলো একটা পাত্রে  তুলতে রাখতে হবে । তারপর ছোট ছোট করে কাটা কাঁচা ব্রকলিগুলো মাশরুমের পাত্রে  ফেলে ভালো করে নেড়ে রাখতে হবে। মজার হওয়ার জন্য সামান্য ওরেগানো পাউডার দেয়া যেতে পারে যদি চান ।তারপর  সবশেষে ভালো করে মাখিয়ে সালাদ পরিবেশন করতে হবে।

আপনি চাইলে এই সালাদ যেকোনো সময় খাওয়া যায়। দুপুরের খাবারের সাথে খেতে   পারবেন। যদি চান  বিকালের নাশতা হিসেবেও খাওয়া যাবে। রাতের খাবার হিসেবে এক বাটি স্যুপ খাওয়ার পর ব্রকলি-মাশরুমের সালাদ নেয়া যেতে পারে।

কারনে ব্রকলিতে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি। রান্না করা খাবার থেকে অনেকখানি পুষ্টি বেরিয়ে যায়। তাই ব্রকলি কাঁচা খাওয়া যায় বলে তার পুরো পুষ্টিটা পাওয়া যায় সহজে । যদি কেউ  দৈনিক ১  কাপ ব্রকলি খেলে ক্যালসিয়াম এবং ফাইবারের চাহিদাও পূরণ হবে এটা আমরা অনেকেই জানি না ।

মাশরুমে মধ্যে  আছে ভিটামিন ডি।যা  শরীরের রোগ প্রতিরোধক্ষমতা বাড়াতে  কাজ করে। বিশেষ করে টি কোষ এবং সি কোষ- যারা রোগ প্রতিরোধের জন্য কাজ করে, তাদের কার্যক্ষমতা বাড়িয়ে দেয় ব্রকলি।তাই এই পুষ্টিকর খাবার টা আমাদের সকলের খাওয়া উচিৎ।

Facebook Comments


No comments so far.

Leave a Reply